Mak Raihan

 
কবিতা

নাজমীন মর্তুজা

শূন্যের ভিতর

বেহুঁশ সনেটগুচ্ছ পরে আছে পত্রমর্মরের দেশে জ্যোৎস্নার সিঁড়ি ভেঙ্গে ছুটছি আজো জেব্রাকাটা রাস্তায়। সৃজন তুমি লেখতে পারোআরও পড়ুন

স্মৃতিকথা

নাজমীন মর্তুজা

পিরিতির বাজারের পথে একদিন

সে বহুদিন আগের কথা, একটা গ্রামের হাটের পথের দৃশ্য স্মৃতিপটে ভেসে উঠলো, তখনো আমি স্কুলের বেড়া টপকেআরও পড়ুন

কবিতা

নাজমীন মর্তুজা

স্বপ্ন

সবক্ষতি মেনে নিয়ে আবার রুয়ে দাও বীজ চাষী, গতবার যা গেছে প্লাবনে… তা এখন জলতরঙ্গের দুঃখ কষ্ট।আরও পড়ুন

কবিতা

নাজমীন মর্তুজা

অপেক্ষা আর অন্ধপ্রেম

অপেক্ষা আর অন্ধপ্রেম হাঁটি হাত ধরে তোমার একটামাত্র শব্দ “ভালো লেগেছে “ অনেক গুলো শব্দের দিকে ঠেলেআরও পড়ুন

কবিতা

নাজমীন মর্তুজা

মহাকালের অস্থি

হঠাৎ একদিন মনসামঙ্গলের দেবীর দেখা পেলে নিবিড় বন্ধুতায় জড়াতাম । তারপর পৃথিবী অঘোর ঘুমে অচেতন হলে যাআরও পড়ুন

ঘুরাঘুরি

নাজমীন মর্তুজা

শব্দের অধরা দেশ

দূর্গম পাহাড় থেকে প্রায় শূন্যে ঝুলে আছে, এই এডেলএইড। জোয়ারে ফুলে ফঁসে ওঠা সমুদ্র তাকে ছোঁয় কিআরও পড়ুন

ঘুরাঘুরি

নাজমীন মর্তুজা

বিদেশে বৈশাখ….

গত চার দিন হলো আমি সিজনাল ফ্লুতে আক্রান্ত, শরীরের ঠান্ডা গরম কে তোয়াক্কা না করেই গিয়েছিলাম গতআরও পড়ুন

প্রবন্ধ

নাজমীন মর্তুজা

জীবন আসলে তুরুপের তাস

আজ সারাটা দিন থেকে থেকে বাড়ির কথা মনে পড়েছে। হৃৎপিণ্ডের ভেতর গেঁথে যাওয়া ছবির মতো বাড়ির কথাআরও পড়ুন

প্রবন্ধ

নাজমীন মর্তুজা

ধর্ষণের মহোৎসব

“যা ঘটেছে সেদিন তার জন্য আমি দায়ী নই” এমন মনোভাব ক’জন নারী বহন করতে পারে আমাদের সমাজে?আরও পড়ুন

কবিতা

নাজমীন মর্তুজা

নিজের ছায়ার চেয়ে বাস্তবিক

উজ্জ্বল তামার মুখ সবুজ ঘাস, পরাধীন ধান রোদ পড়ে চন্দনে, ফাল্গুনে কেনা আলো হলুদ পাটল রঙ। তাকেআরও পড়ুন